প্রবন্ধ, বই আলোচনা পেতে যোগাযোগ রাখুন

অসংখ্য বই, সময় এত কম!

সর্বশেষ লেখা

বাংলাদেশ ও ব্রিটেনের পরিবহন ব্যবস্থা, আইন ও বিধিমালার তুলনা

যেকোনো আইনের কার্যকারিতা নির্ভর করে আইনের বাস্তবায়ন বা প্রয়োগের ওপর। কেবল এর মাধ্যমেই সাধারণ মানুষ উপকারভোগী হতে পারে। একটি আইন তৈরি হয় অনেক চিন্তাভাবনা করেই। এখানে অনেক পক্ষ জড়িত থাকে। সবার মতামত নিয়েই সেটা শেষ পর্যন্ত পাস হয়ে থাকে। এই নিবন্ধে যুক্তরাজ্যের সড়ক পরিবহন ব্যবস্থা, সংশ্লিষ্ট আইনের পর্যালোচনা করা হয়েছে এবং বাংলাদেশে পাস হতে যাওয়া সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮ ও বিগত দিনের আইনের (সড়ক পরিবহন অধ্যাদেশ, ১৯৮৩) সঙ্গে তুলনামূলক আলোচনা করা হয়েছে। এ ছাড়া দুই দেশের বিভিন্ন সময়ে প্রণীত বিধিমালা, নীতিমালাও বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে। অনেক ক্ষেত্রে আইন ও বিধিবিধানের বিবর্তনও ধরা পড়েছে। এখন প্রশ্ন হলো, … Read More about বাংলাদেশ ও ব্রিটেনের পরিবহন ব্যবস্থা, আইন ও বিধিমালার তুলনা

আধুনিক ও প্রাচীন দাসের পার্থক্য : তুলনামূলক বিচার

প্রাচীনকালে দাস বেচাকেনা সমসাময়িককালে বিভিন্ন পক্ষ থেকে ‘দাসপ্রথা’র অস্তিত্বের কথা বলা হচ্ছে। কিন্তু ‘আধুনিক দাস’ হিসেবে উল্লেখ যাদের কথা আসছে বারবার, আসলে তারা কারা, এর দ্বারা কী বোঝানো হয়েছে সেটা তত্ত্বতালাশ করার সচেষ্ট প্রয়াস এই লেখা। প্রাচীন ও মধ্যযুগের দাসদের সঙ্গে বর্তমান যুগের দাসদের তুলনামূলক আলোচনা করা হয়েছে। ২০১৮ সালের জুলাইয়ে ওয়াক ফ্রি ফাউন্ডেশন নামে অস্ট্রেলিয়াভিত্তিক একটি সংগঠন গ্লোবাল স্লেভারি ইনডেক্স (বিশ্ব দাসত্ব সূচক) প্রকাশ করেছে। এতে ১৬৭টি দেশে তারা জরিপ চালিয়ে দেখেছে, এসব দেশে আধুনিক দাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যের নাম … Read More about আধুনিক ও প্রাচীন দাসের পার্থক্য : তুলনামূলক বিচার

মগ ও মুল্লুকের সুলুকসন্ধান

রানা রায়হান ঘরে-বাইরে অপরের নানা ধরনের দোষত্রুটির পরিপ্রেক্ষিতে আমরা ঘনঘন মগের মুলুক বা মুল্লুক শব্দবন্ধ ব্যবহার করে থাকি। এসব দোষত্রুটির মধ্যে কী কী আছে সেগুলো একটা তালিকা করা যাক : যানবাহনের ভাড়া বেশি চাইলে বা কম দিলে, ভাড়াটে যখন-তখন বাড়িতে প্রবেশ করলে বা বাড়িওয়ালা অন্যায় আচরণ করলে, বাজারে চালডাল তরিতরকারির বা নিত্যপণ্যের দাম আকস্মিক বেড়ে গেলে বা খুব কমে গেলে, ছেলেমেয়েরা বাড়িতে দেরিতে ঢুকলে, স্পিড মানির পরিমাণ বেড়ে গেলে বা দিতে বাধ্য হলে, বাস বা ট্রেনের টিকেটের জন্য দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে না পেলে বা সময় বেশি লাগলে, সরকার নতুন কোনো আইন করলে, পথচারীরা আইন না মানলে বা প্রয়োগ … Read More about মগ ও মুল্লুকের সুলুকসন্ধান

‘আগুনপাখি’র হল্কা

‘আগুনপাখি’ এই ভারত বর্ষের ইতিহাসকে আরেকবার দেখে নিতে চায়, যে ইতিহাসের ফল বর্তমান-তাকেই বারবার প্রশ্নবানে জর্জরতি করে। কোনো এক অজপাড়া গাঁয়ের গৃহবধুই এই উপন্যাসের নায়ক। তার বয়ানেই লেখক ইতিহাসের প্রেক্ষাপটে ফিরে গেছেন, ছবি এঁকেছেন নিপুণহাতে কোনো এক সামন্তীয় যৌথ পরিবারের। তার প্রশ্ন, তার জানতে চাওয়া, তার বিদ্রোহ তার সব হাহাকারের কাছে খান খান হয়ে ভেঙে পড়েছে সমস্ত প্রতিষ্ঠিত যুক্তি, রাজনীতি ও ইতিহাস। সেই গৃহবধুর কোনো নাম লেখক দেননি। ইতিহাস তো কারো ব্যক্তিগত নামের চাকার সাথে গড়িয়ে চলে না, সেতো সবার কথাই বলতে চায়। সচেতনভাবেই লেখক চরিত্রের নামকরণ এড়িয়ে গেছেন। চরিত্রের নাম লেখকের জন্য মোটেই কঠিন কোনো … Read More about ‘আগুনপাখি’র হল্কা

নোবেলজয়ী কবি টোমাস ট্রান্সট্রোমারের সাক্ষাৎকার [পর্ব-১]

ভাষান্তর: রানা রায়হান টোমাস ট্রান্সট্রোমার ( জন্ম : ১৫ এপ্রিল, ১৯৩১- মৃত্যু : ২৬ মার্চ, ২০১৫) টোমাস ট্রান্সট্রোমার ২০১১ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন। ১৯৩১ সালে স্টকহোমে জন্ম। এর আগে তিনি ১৯৮৩ সালে কবিতার জন্য মর্যাদাপূর্ণ বনিয়ার পুরস্কার পান, ১৯৮১ সালে পান পশ্চিম জার্মানির পেত্রার্ক পুরস্কার। ১৯৮৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ইকো প্রেস থেকে তার ‘সিলেক্টেড পোয়েমস ১৯৫৪-১৯৮৮’ (অনূদিত) প্রকাশিত হয়। ১৯৮৯ সালের ৭ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য ইন্ডিয়ানাপোলিসে লিন্ডা হভার্থের বাসায় এবছরের নোবেলজয়ী কবি টোমাস ট্রান্সট্রোমারের দীর্ঘ সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়। সাক্ষাৎকারটি নেন মার্কিন কবি … Read More about নোবেলজয়ী কবি টোমাস ট্রান্সট্রোমারের সাক্ষাৎকার [পর্ব-১]

‘জাগরী’র অন্ত:প্রাণ ঘাত-সংঘাত

‘জাগরী’র আকর্ষণীয় দিক হলো কাহিনীর প্রতিটা চরিত্রের নিজ নিজ গল্প-কথা বলার সময়-পরিধি এবং ঘটনার পটভূমি। সন্ধ্যা বেলা থেকেই প্রত্যেক চরিত্রের শুরু। কিন্তু প্রয়োজনের তাগিদেই লেখক প্রতিটা চরিত্রকে নিজ নিজ অতীতে নিয়ে গেছেন, এমনকি শৈশব পর্যন্ত। মোট চার পর্বের উপন্যাসটা প্রথম প্রকাশ পায় ১৯৪৫ সালে, রবীন্দ্র পুরস্কার পায় ১৯৫০ সালে। উপন্যাসটা উৎসর্গ করা হয় ভারত বর্ষের অজ্ঞাতনামা রাজনৈতিক কর্মীদের উদ্দেশ্যে জাতীয় ইতিহাসে-বিবরণে যাদের নাম কোনো দিনই লেখা হবে না। সতীনাথ ভাদুড়ী তাঁর উপন্যাসের কাহিনী হিসেবে বেছে নিয়েছেন ভারত বর্ষের রাষ্ট্রীয় পরিবার বা রাজনৈতিক পরিবারকে। প্রতিটা চরিত্রই কোনো না কোনো … Read More about ‘জাগরী’র অন্ত:প্রাণ ঘাত-সংঘাত

অনতিদূর ইতিহাসে বর্গিদের পরিচয়, কর্মকাণ্ড

ছবি : সংগৃহীত বাংলা সাহিত্য ও সমাজের বিভিন্ন দৃষ্টান্তে বর্গিদের আতঙ্কের ছাপ ছড়িয়ে আছে। এমনকি এখনো কি পশ্চিমবঙ্গ কি বাংলাদেশ সবখানেই এদের কথা সবার মুখে মুখে। বিখ্যাত একটি ছড়াই তো আছে যেটা জানে না এমন বাঙালি পাওয়া দুষ্কর। ‘ছেলে ঘুমালো পাড়া জুড়ালো বর্গি এল দেশে বুলবুলিতে ধান খেয়েছে খাজনা দেব কিসে? ধান ফুরোলো পান ফুরোলো খাজনার উপায় কি? আর কটা দিন সবুর কর রসুন বুনেছি।’ সেই বর্গিরা মূলত লুটতরাজ করত। ভূখণ্ড রাজ্য দখল বা রাজাকে গদি থেকে সরানো তাদের লক্ষ্য ছিল না। অগ্নিসংযোগ, ধনসম্পদ লুট ইত্যাদি দুষ্কর্মের সাথেই তারা জড়িত ছিল। এমনকি গণধর্ষণের সঙ্গেও যুক্ত থাকত তারা। সাহিত্যে বর্গিদের … Read More about অনতিদূর ইতিহাসে বর্গিদের পরিচয়, কর্মকাণ্ড